কিশোরীকে ধর্ষণের দায়ে যুবক গ্রেপ্তার

প্রকাশিত: ৪:২৬ অপরাহ্ণ , ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩, সোমবার , পোষ্ট করা হয়েছে 9 months আগে

সাভারের আশুলিয়ায় এক কিশোরীকে জোরপূর্বক ধর্ষণের মামলায় অভিযুক্ত আরফি খান জয় (২৬) নামের যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সোমবার দুপুরে আদালতের মাধ্যমে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

গ্রেফতারকৃত জয় আশুলিয়ার জিরাবো ধনাইদ এলাকার শামশুল খানের ছেলে।

আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মিলন ফকির বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

ঘটনার বরাত দিয়ে উপ-পরিদর্শক মিলন ফকির জানান, গত শনিবার বিকেলে আশুলিয়ার পলাশ বাড়ি এলাকার একটি হাউজিং কোম্পানির ভিতরে নির্জন জঙ্গলের নিয়ে গিয়ে এক কিশোরীকে ধর্ষণ করার অভিযোগে আরফি খান জয়কে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। কিশোরীর মা বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করলে এরই প্রেক্ষিতে রোববার রাতে অভিযান চালিয়ে আশুলিয়ার পলাশবাড়ি এলাকা থেকে জয়কে আটক করা হয়।

ভুক্তভোগী কিশোরীর ভাই জানান, হাউজিং কোম্পানির ভিতরে একটি প্লট দেখাশুনার জন্য মালিকের বাড়িতেই বসবাস করে তার পরিবার। আমাদের পরিবার অনেক দরিদ্র। আমার বোন ও মা বাসায় থাকে। আমার মামা পাশাপাশি আরেকটি প্লটর মালিকের বাসায় পরিবার নিয়ে থাকেন। তিনি হাউজিংয়ের কেয়ারটেকার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। আজ বিকেলে শুধু আমার হাউজিংয়ের গেটের চাবি দিতে বোনকে পাশেই মামার বাসায় পাঠায়। ফেরার পথে শাখা সড়ক থেকে কৌশলে তার মুখ চেপে ধরে পাশে গভীর জঙ্গলে নিয়ে যায়। পরে আমার বোনকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। এসময় চিৎকার করলেও নির্জন জঙ্গলের কারণে পালিয়ে যায় আরিফ নামে এক বখাটে। পরে আমার বোন বাসায় এসে ঘটনা বললে আরিফকে সনাক্ত করি আমরা। মাঝেমধ্যেই বখাটে ছেলেদের নিয়ে হাউজিংয়ের ভেতর আরিফ মাদকসেবন করতো। আমার বোনের সাথে তার কোন সম্পর্কও নাই। আমরা এঘটনার বিচার চাই।

এ ব্যাপারে আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মিলন ফকির আরো জানান, কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগে একটি মামলা দায়ের হয়েছে। সেই মামলার প্রেক্ষিতে রোববার রাতে অভিযান চালিয়ে আশুলিয়ার পলাশবাড়ি এলাকা থেকে অভিযুক্ত জয়কে গ্রেফতার করা হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন

আরও খবর