সারা বিশ্বের মত আমরাও আজ ইতস্ততঃ “খোলা চিঠি”

প্রকাশিত: ১১:০৫ পূর্বাহ্ণ , ৬ এপ্রিল ২০২০, সোমবার , পোষ্ট করা হয়েছে 4 years আগে

মোঃ তাসলিম উদ্দিন সরাইল প্রতিনিধিঃ আমান উল্লাহ আমান ফেসবুকের স্ট্যাটাসটি কালের বির্বতন এর পাঠকদের জন্য হুবহু তুলে ধরা হল। সরাইল উপজেলা প্রশাসন (মাননীয় উপজেলা চেয়ারম্যান, মাননীয় উপজেলা নির্বাহী অফিসার, মাননীয় অফিসার ইনচার্জ) সরাইল থানা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া। সারাবিশ্বই আজ এক কঠিন দুঃসময় পার করছে। করোনা নামক ভাইরাসে বিশ্বের অনেক ক্ষমতাশালী দেশই আজ পরাস্ত।

মরা লাশ ঘুনছে শুধু থাকিয়ে থাকিয়ে এই ধরনী। লাশ আর লাশের স্তুপ। যেন কার পরে কে মরবে আর ট্রাক ভরে, বস্তা ভরে তাকে কোথায় নিয়ে ফেলা হবে এই হাহাকার। না বাবার লাশ শেষবারের মত সন্তানে দেখে, না গর্ভধারণী মায়ের লাশ সন্তানে। না দেখতে পাই বটবৃক্ষের মত আগলে রাখা সন্তানের লাশটা তার পিতা, না দেখতে পাই পরম মমতায় পেটে পিটে করে মানুষ করা তার মাতা। না দেখতে পাই পরম মমতায় বুকে টেনে রাখা স্ত্রী তার স্বামীর লাশ, স্বামী তার স্ত্রীর লাশ। যেন তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধের ধ্বংসস্তুপ। এভাবে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধেও মানুষ মারা যায় নি। আর এভাবে আপনজন হারানোর ব্যাথাটা শুধু যে হারাই সে ই বুঝে।

কোন দাফন নাই, জানাযা নাই, নাই কোন অন্তেষ্টিক্রিয়া। শুধু এক বুক চাপা কান্না আর হারানোর হাহাকার।সারা বিশ্বের মত আমরাও আজ ইতস্ততঃ। আমরাও মনে হচ্ছে কাবু হয়ে যাচ্ছি। কি হবে আমাদের অবস্থা, কি হবে পরিনত যদি করোনা আমাদেরকে গ্রাস করে ফেলে। আমরা তো উন্নত বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে চিকিৎসাও পাব না। চিকিৎসা ত দুরের কথা অধিকাংশ পরিবারের অন্নই জুটবে না দু ‘বেলা। বিশেষ করে আমরা তো ইউরোপ, আমেরিকানদের মত এত সচেতন না।তারপরও তো আমরা মানুষ। আমরা বাচতে চাই। আর আমরা এ ও দেখছি আপনারা দিনরাত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন মানুষকে নিরাপদ রাখার জন্য, বাঁচানোর জন্য, আপনারা চেষ্টা করে যাচ্ছেন মানুষকে কোয়ারেইন্টাইনে রাখার জন্য। কিন্তু তারপরও দেখছি অনেক মানুষ ই তা মানছে না। বিশেষ করে সরাইলের বিভিন্ন ইউনিয়নের অনেকগুলো গ্রামেই দেখছি বা খোজ পাচ্ছি কোয়ারেইন্টাইন এর পরিবর্তে গ্রামের ভিতরের দোকানগুলোতে বিশাল আড্ডা জমছে।

বাজারেও মোটামুটি মানুষের সমাগম হচ্ছে। এমতবস্থায় সরাইলের মানুষগুলো আমরা যারা আছি সবাই ই হুমকির মুখে পরছি।এমতাবস্থায় সরাইল উপজেলা প্রশাসনের নিকট আমাদের আকুল আবেদন আপনারা প্রশাসনিক ক্ষেত্রে প্রয়োজনে আরো কঠোর পদক্ষেপ নিন। প্রয়োজনে দুই চার ঘন্টা বাদে পুরো সময়টাই লক ডাউন করে দিন। তবু এই অসচেতন মানুষগুলোকে বাচাতে চেষ্টা করুন।সাংবাদিক, সুশীল সমাজ এবং জনপ্রতিনিধেরও সুনজর কামনা করছি।আল্লাহ ভাল রাখুক এই সরাইলবাসীকে। ভাল রাখুক এই দেশকে। ভাল রাখুক এই বিশ্ববাসীকে।সর্বশেষ আমরা তো এই খোদার আরশের পানেই থাকাইয়া আছি তার খোদায়ী রহমতের আশায়। আল্লাহ আমাদেরকে মাফ করো।

মন্তব্য লিখুন

আরও খবর