সরাইলে ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে

প্রকাশিত: ৬:৩৮ অপরাহ্ণ , ১০ এপ্রিল ২০২১, শনিবার , পোষ্ট করা হয়েছে 4 weeks আগে

মো. তাসলিম উদ্দিন সরাইল( ব্রাহ্মণবাড়িয়া)

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল উপজেলার পাকশিমুল গ্রামের যুবক দেলোয়ার হোসেন হত্যার ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করেছেন নিহতের মা। এ মামলায় প্রধান আসামি করা হয়েছে উপজেলার পাকশিমুল ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি সাইফুল ইসলামকে। এছাড়াও মামলায় আরও ৩৭ জনকে আসামি করা হয়েছে।
আজ শনিবার (১০ এপ্রিল) বিকেলে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সরাইল থানার অফিসার ইনচার্জ এ এম এম নাজমুল আহমেদ। তিনি আরও জানান, এ মামলায় এ পর্যন্ত চারজনকে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। মামলাটি তদন্ত করছেন থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) জসিম উদ্দিন। বাকি আসামিদের গ্রেফতারে পুলিশ অভিযান অব্যাহত আছে। সেই এলাকার পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।
উল্লেখ্য, গোষ্ঠীগত দ্বন্দ্বের জেরে হামলায় ছুরিকাঘাতে মৃত্যু হয় দেলোয়ার হোসেন (২০) নামে এক যুবকের। নিহত দেলোয়ার হোসেন উপজেলার পাকশিমুল ইউনিয়নের পাকশিমুল গ্রামের প্রবাসী হান্নান মিয়ার ছেলে। বুধবার (৭ এপ্রিল) দিবাগত রাত সাড়ে ১১টায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় যুবক দেলোয়ারের মৃত্যু হয়।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে প্রকাশ, পাকশিমুল ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি সাইফুল ইসলাম এবং একই ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল কাশেম ওরফে কাছম আলী এই দু’জনের মধ্যে গোষ্ঠীগত দ্বন্দ্ব দীর্ঘদিন যাবত। তাদের দু’জনের বাড়ি পাকশিমুল গ্রামে।
বুধবার সন্ধ্যায় পাকশিমুল গ্রামে ইউপি চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলামের পক্ষের ছায়েদুল হক বদু নামে এক ব্যক্তির সঙ্গে সাবেক চেয়ারম্যান কাছম আলীর ছেলে মোজাম্মেল মিয়ার তুচ্ছ ঘটনায় প্রথমে কথা কাটাকাটি ও পরে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। এর জের ধরে দু’পক্ষের লোকজন মারামারিতে লিপ্ত হয়। এসময় দেলোয়ার হোসেনকে ছুরিকাঘাত করে প্রতিপক্ষের লোকেরা।

মন্তব্য লিখুন

আরও খবর