সরাইলের নবনির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান শের আলম’কে গনসংবর্ধনা

প্রকাশিত: ৫:৪৭ পূর্বাহ্ণ , ১০ জুন ২০২৪, সোমবার , পোষ্ট করা হয়েছে 1 week আগে
ছবি- কালের বিবর্তন

মোঃ তাসলিম উদ্দিন, সরাইলঃ সংবর্ধিত অতিথি সরাইল উপজেলা পরিষদ নব নির্বাচিত চেয়ারম্যান মো.শের আলম মিয়া বলেছেন,নির্বাচন আসছে নির্বাচন চলে গেছে। নির্বাচনের প্রতিদ্বন্দ্বিতা থাকতে হবে। যারা আমাকে নির্বাচনে ভোট দিয়েছেন বা ভোট দেননি’আপনারা সকলকেই আমার ভাই। আমি আপনাদেরকে নিয়ে।

নির্বাচনী ভেদাভেদ ভুলে গিয়ে। সরাইল উপজেলার উন্নয়নে আমরা সকলেই একসাথে কাজ করতে চাই। আমি আপনাদের সন্তান আমি আপনাদের সহযোগিতা চাই। গতকাল রোববার( ৯ জুন) বিকালে সরাইল উপজেলা সদর উচালিয়াপাড়া গ্রামবাসীর পক্ষে ব্যবসায়ী আলমগীর মিয়ার সার্বিক সহযোগিতায়।

উচালিয়া পাড়া মোড় চত্বরে এ সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আলোচনা সভায় উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো.শের আলম মিয়া সকলের উদ্দেশ্যে এই উপরোক্ত কথাগুলো বললেন।
চেয়ারম্যান শের আলম মিয়া বলেন, আমি আপনাদের সন্তান।আজ যারা আপনারা এখানে উপস্থিত হয়েছেন।

আর যারা উপস্থিত হতে পারেন নাই।আপনারা একটি কথা মনে রাখবেন, আমাকে চেয়ারম্যান মনে করবেন না।আমি আপনাদের ভাই আমাকে আপনাদের গ্রামের সন্তান মনে করবেন। আপনারা পাশে ছিলেন সবসময় আমার পাশে থাকবেন। আমি আপনাদের কাছে অঙ্গীকারবদ্ধ। মানুষের সুখে দুখে সেবক হয়ে পাশে থাকতে চাই।

উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন, সরাইল উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের সাবেক সভাপতি তরুণ আইনজীবী এড. আশরাফ উদ্দিন মনতু,এ সময় বক্তব্য রাখেন,সরাইল উপজেলা রিপোর্টার্স ইউনিটি সাধারণ সম্পাদক মো.তাসলিম উদ্দিন।

উপজেলা যুবলীগ নেতা মো. আলমগীর মিয়া, উপজেলা যুবলীগ নেতা শাহ কাইয়ুম মিয়া, মো. আবুশার সঞ্চালনায় আরো বক্তব্য রাখেন, মো. শামীম উদ্দিন, মো.চান মিয়া মাস্টার, মো.আনিস মিয়া,মো.ফজলু মিয়া প্রমুখ। সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন। ইউপি সদস্য মো.আরিছ মেম্বার।

উন্নয়নের বিষয় বলতে গিয়ে চেয়ারম্যান বলেন, আমি এই এলাকার সন্তান।আমি জানি এ এলাকায় কি সমস্যা রয়েছে। পর্যায়ক্রমে ইনশাল্লাহ যতটুকু সম্ভব সব কাজই করা হবে। তবে মা-বোনদের যাতে কষ্ট না হয় উচালিয়া পাড়ার প্রত্যেকটি পুকুরে ঘাটলা করে দেওয়া হবে।

জরুরী ভিত্তিতে কালভার্ট পানি নিষ্কাশনের জন্য ড্রেন করা হবে। মানুষের যাতে চলাফেরা কষ্ট না হয় গুরুত্বপূর্ণ রাস্তার কাজ করা হবে। আপনারা আমার জন্য দোয়া করবেন। চেয়ারম্যান শের আলম বলেন,তবে আমি কয়েক দিনে দেখেছি একজন চেয়ারম্যান চাইলে রাতারাতি টাকার মালিক হয়ে যেতে পারেন।

আবার একজন চেয়ারম্যান ইচ্ছা করলে উন্নয়নে উপজেলার চিত্র পাল্টে দিতে পারেন। আমিএ সন্ধ্যায় আপনাদের কাছে ওয়াদা দিয়ে যাচ্ছি । অর্থবৃত্তের মালিক হতে আমি আসি নাই। আমি আপনাদের সুখে দুখে পাশে থাকার জন্যে এসেছি।

সরাইলের উন্নয়নের চিত্র পাল্টে দিয়ে ইতিহাস সৃষ্টি করতে চাই “ইনশাআল্লাহ।আমার জন্য আপনারা দোয়া করবেন।

মন্তব্য লিখুন

আরও খবর