• খেলাধুলা শীর্ষ সংবাদ
  • যুব বিশ্বকাপ ফাইনালে বিবাদে জড়িয়ে আইসিসির শাস্তি পেলেন বাংলাদেশ-ভারতের ৫ ক্রিকেটার

যুব বিশ্বকাপ ফাইনালে বিবাদে জড়িয়ে আইসিসির শাস্তি পেলেন বাংলাদেশ-ভারতের ৫ ক্রিকেটার

প্রকাশিত: ৭:৫৩ অপরাহ্ণ , ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২০, বুধবার , পোষ্ট করা হয়েছে 4 years আগে
bangladesh-criket
ফাইল ছবি

তানিম রহমান পরান (ভ্রাম্যমাণ প্রতিনিধি) : যুব বিশ্বকাপ ফাইনালে বাংলাদেশ ভারতকে হারিয়ে ট্রফি জেতার পরে মাঠে দুই দলের ক্রিকেটারদের মধ্যে বিবাদের কারণে দুই দেশের পাঁচজন ক্রিকেটারকে দোষী সাব্যস্ত করেছে আইসিসি। এর মধ্যে তিনজন বাংলাদেশি এবং দুইজন ভারতীয় ক্রিকেটার। তাদের বিরুদ্ধে নেয়া হয়েছে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা। বাংলাদেশের তৌহিদ হৃদয়, শামীম হোসেন ও রাকিবুল হাসান এবং ভারতের আকাশ সিং ও রবি বিষ্ণুই।

ম্যাচের শুরু থেকেই দু’দলের ক্রিকেটারদের মধ্যে উত্তপ্ত বাক্যবিনিময় চলে, যা অব্যাহত থাকে বাংলাদেশের ব্যাটিংয়ের সময়ও। রুদ্ধশ্বাস ম্যাচে ঐতিহাসিক জয়ের পর টাইগার যুবাদের উল্লাসের সময় অনাকাঙ্খিত বিবাদে জড়ান দু’দলের খেলোয়াড়রা।রকিবুল হাসান জয়সূচক শেষ রানটি নেয়ার পর উল্লাসে মাতেন বাংলাদেশের খেলোয়াড়রা।

এ সময়ে মাঠে থাকা ভারতীয়দের সঙ্গে কথা-কাটাকাটি, এমনকি সামান্য ধাক্কাধাক্কিও হয়। পতাকা নিয়ে টানা হেঁচড়ার ঘটনাও ঘটে মাঠে। এ বিষয়ে দুঃখ প্রকাশ করেছিলেন বাংলাদেশের অধিনায়ক আকবর আলী। কিন্তু তাতেও খুব একটা লাভ হয়নি।

ফাইনালের ম্যাচ রেফারি গ্রায়েম ল্যাবরয় জানান, বাংলাদেশের তিন ক্রিকেটার ও ভারতের দুই খেলোয়াড় আইসিসির বিধিবিধানের ২.২১ ধারা ভঙ্গ করেছেন।

তদন্ত প্রতিবেদন অনুযায়ী শাস্তি পেয়েছেন বাংলাদেশের অভিযুক্ত তিন ক্রিকেটার। তৌহিদ পেয়েছেন ৬টি ডিমেরিট পয়েন্ট, শামীমও পেয়েছেন ৬টি ডিমেরিট পয়েন্ট আর রাকিবুল পেয়েছেন ৫টি ডিমেরিট পয়েন্ট।

এর ফলে তৌহিদ হৃদয় ১০ ম্যাচ নিষিদ্ধ, শামীম হোসেন ৮ ম্যাচ নিষিদ্ধ এবং রকিবুল হাসান ৪ ম্যাচের জন্য নিষিদ্ধ।এদিকে, ভারতের আকাশ সিং পেয়েছেন ৬টি ডিমেরিট পয়েন্ট। নিষিদ্ধ হয়েছেন ৬ ম্যাচ।

আর লেগস্পিনার রবি বিষ্ণুইয়ের ডিমেরিট পয়েন্ট ৫। তাকে নিষিদ্ধ করা হয়েছে ৫ ম্যাচ। বিষ্ণয়ের ক্ষেত্রে ধারা ২.৫ ভাঙার অভিযোগও প্রমাণিত হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন

আরও খবর