মাটির ভিতরে হবে ঘর, মাটির পাত্রে প্রিয় শৈশব

প্রকাশিত: ৭:২১ অপরাহ্ণ , ২৮ মে ২০২০, বৃহস্পতিবার , পোষ্ট করা হয়েছে 4 months আগে

মোঃ তাসলিম উদ্দিন সরাইল প্রতিনিধিঃ গানের কলি, একদিন মাটির ভিতরে হবে ঘর, পরে রবে” মা”
নানার সেই কোমল ডাক আর শুনি না, না বলা সত্ত্বেও মনের কথা বুঝে ফেলার অধিকারিণী নানু ছেড়ে চলে গিয়েছে, বহু  বছরের আগে। মাটির পাত্র যা গ্রাম বাংলার ভাষায় মাটির হানকি বলে ! দূর গাঁয়ের চাষীদের কলসি মাথায় খেঁজুরের রস বেচতে আসার সেই দৃশ্য। যদিও এখন আর তেমন দেখা যায় না আমাদের গাঁয়ে। আমার গ্রামের আশেপাশের গ্রামেও খেঁজুর রস নেই আর! হারিয়ে যেতে শুরু হয়েছে আমাদের চেনা অনেক কিছু। যা নিয়ে বেঁচে আছি তা যেন মৃত্যুর যন্ত্রনা।

আতঙ্ক বিরাজ করছে আমাবশার রাতের মত। ঝিঝিপোকা আলো ছড়াচ্ছে মৃত্যুর দিশারী হযে। সবকিছুতেই যেন করোনার ভয়?
দুধে আলতা গায়ের ছোট্ট গড়নের দাদু হারিয়ে গিয়েছে সেই কবে , প্রথম খেলার সাথীরা কে কোথায় তাও জানি না । গলাগলি করে বেড়ে ওঠা ভাই বোনেরাও এখন কত দূরে দূরে।খুঁজে নিয়েছি এবারের ঈদে শৈশব প্রিয় মাটির পাত্র আবার বলি নিজের ভাষায় হানকি ভরে পানি ভাত বা পান্তা ভাত।। অনেকেই ভাবে নিজের মতে,তুমি যেমন একটু একটু করে অনেক পিছনে চলে গিয়েছ তেমনি তোমায় ঘিরে থাকা অনেক মানুষও আজ জীবনের খাতা থেকে হারিয়ে গিয়েছে ।
একরাশ হাহাকার আর সুখের স্মৃতি নিয়ে বুকের মাঝে আছ খুব যতনে । থাকবে আমৃত্যু । “এই আমি ” করোনা মানব জাতিকে এ কোন নতুন পথের শিক্ষা দিচ্ছে -? চিরন্তন সত্য মৃত্যু একদিন মাটির ভিতরে হবে ঘর -!

মন্তব্য লিখুন

আরও খবর