ব্রাহ্মনবাড়িয়া নবীনগরে দু’পক্ষের সংঘর্ষে একজনের পা কর্তনে আনন্দ মিছিল

প্রকাশিত: ৮:৩৮ অপরাহ্ণ , ১২ এপ্রিল ২০২০, রবিবার , পোষ্ট করা হয়েছে 4 years আগে

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলায় শত শত মানুষের উপস্থিতিতে দুই পক্ষের রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে ৩০ জন আহত ও একজনের পা কেটে নিয়ে আনন্দ মিছিল করা হয়েছে। এ ব্যাপারে এলাকা থেকে পুলিশ ২২ জন কে গ্রেফতার করেছে। পরবর্তী যেকোন ঘটনা এড়াতে এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। আধিপত্য বিস্তার নিয়ে রোববার (১২ এপ্রিল) সকাল থেকে থেমে থেমে কয়েক দফায় নবীনগর উপজেলার কৃষ্ণনগর ইউনিয়নের থানাকান্দি গ্রামে এ সংঘর্ষ চলে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, দীর্ঘদিন ধরে কৃষ্ণনগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জিল্লুর রহমানের সঙ্গে থানাকান্দি গ্রামের বাসিন্দা কাউসার মোল্লার বিরোধ চলছে। আধিপত্য বিস্তার নিয়ে চলা এ বিরোধের জেরে রোববার সকাল ১১টার দিকে উভয় পক্ষের লোকজন দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। থেমে থেমে চলা এ সংঘর্ষে অন্তত ৩০ জন আহত হয়েছেন। ও সংঘর্ষ চলাকালে ধারালো অস্ত্র দিয়ে মোবারক মিয়া (৪৫) নামে এক ব্যক্তির পা কেটে নিয়ে গ্রামে আনন্দ মিছিল করে এক পক্ষ। ওই মিছিল থেকে পায়ের বদলে মাথা কেটে নিয়ে আসার কথাও বলা হয়। এছাড়াও সংঘর্ষ চলাকালে বেশ কয়েকটি ঘর-বাড়িতে হামলা ও ভাঙচুর চালিয়ে অগ্নিসংযোগ করা হয়।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (নবীনগর সার্কেল) মকবুল হোসেন জানান, বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

মন্তব্য লিখুন

আরও খবর