ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে হামলার ঘটনায় থানায় অভিযোগ

প্রকাশিত: ৪:২৬ পূর্বাহ্ণ , ১৭ ডিসেম্বর ২০১৯, মঙ্গলবার , পোষ্ট করা হয়েছে 5 years আগে
সিসি টিভির ফুটেজে মুখোশধারী হামলাকারীরা

স্টাফ রিপোর্টার : মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা পরিষদের আয়োজনে মুক্তিযোদ্ধাদের দেওয়া সংবর্ধনার প্রাক্কালে হামলার ঘটনায় সদর মডেল থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

সোমবার রাতে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা পরিষদের প্রশাসনিক কর্মকর্তা রতীশ চন্দ্র রায় বাদী হয়ে এই অভিযোগ দায়ের করেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ সেলিম উদ্দিন।

অভিযোগ পত্রে বলা হয়, স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা থাকে যে, মহান বিজয় দিবস-২০১৯ উপলক্ষে জাতীয় কর্মসূচীর পরিপ্রেক্ষিতে প্রতিটি দপ্তর/সংস্থা আলাদা আলাদা কর্মসূচী প্রণয়ন করবে এবং বাস্তবায়ন করবে। নির্দেশনা মোতাবেক গত ২৮ অক্টোবর ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা পরিষদের সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় জেলার মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ১৬ডিসেম্বর বিজয় দিবসের দিন মঞ্চ সজ্জা, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ছবি সসম্বলিত ব্যানার এবং মুক্তিযুদ্ধ ভিত্তিক ছবি দিয়ে জেলা পরিষদ চত্বর সাজানো হয়। সকাল ৮টা ৪৫মিনিট থেকে ৯টার ভেতরে জেলা পরিষদ চত্বরে প্যান্ডেল, চেয়ার, স্টেজের টেবিল, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর নামে বানানো ব্যানার, ফেস্টুন ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ছবি সম্বলিত ব্যানার, ফেস্টুন কিছু সংখ্যক মুখোশদারী দুস্কৃতিকারী ভাংচুর করে চলে যায়। যা পরবর্তীতে আমন্ত্রিত মুক্তিযোদ্ধাগণ, প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকগণ প্রত্যক্ষ করেছেন।

এই ঘটনায় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য অনুরোধ জানানো হয়। এছাড়াও ঘটনার সময় জেলা পরিষদের সহকারী প্রকৌশলী মোঃ তারিকুল ইসলাম, একজন অফিস সহায়ক ও নৈশপ্রহরী দাঁড়ানো ছিল বলে উল্লেখ করা হয়।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ সেলিম উদ্দিন বলেন, আমরা অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে এবং এর আইনগত বিষয়ে প্রক্রিয়া চলছে।

১৬ডিসেম্বর মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে জেলা পরিষদ প্রাঙ্গনে আলোচনা সভা ও মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনার আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠান শুরুর সময় বেলা ১১টায় হলেও সকাল পৌনে ৯টার দিকে মুখে কাপড় বাঁধা অবস্থায় ৮/১০জন যুবক সভাস্থলে হামলা করে চেয়ার, টেবিল ও স্টেজ ভাংচুর করে। এসময় ছিড়ে ফেলা হয় বঙ্গবন্ধুর ছবি, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি ও জয় বাংলা লেখা সম্বলিত ব্যানার।

এ ঘটনায় বিক্ষোভ প্রদর্শন করে মিছিল করেছে সংবর্ধনা নিতে আসা মুক্তিযোদ্ধারা। তারা দোষীদের শাস্তি দাবী করেছে।

মন্তব্য লিখুন

আরও খবর