ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় তাণ্ডব: হেফাজতের দুই নেতাকে গ্রেপ্তারের দাবিতে স্মারকলিপি

প্রকাশিত: ৯:০০ অপরাহ্ণ , ২ জুন ২০২১, বুধবার , পোষ্ট করা হয়েছে 1 week আগে

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সাম্প্রতিক তাণ্ডবের ঘটনায় জেলা হেফাজতে ইসলামের সভাপতি মাওলানা সাজিদুর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক মুফতি মুবারক উল্লাহসহ জড়িত সকল আসামিকে গ্রেপ্তারের দাবিতে প্রধানমন্ত্রীর বরাবর কাছে স্মারকলিপি দেওয়া হয়েছে। বুধবার (২ জুন) বেলা ১১টায় ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জেলা প্রশাসক হায়াত উদ-দৌলা খাঁনের কাছে ব্রাহ্মণবাড়িয়াবাসীর পক্ষে বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন এবং ব্যক্তি এই স্মারকলিপি প্রদান করেন।
স্মারকলিপিতে জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি, ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবের সভাপতি, জেলা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ড্রাস্ট্রিজের সভাপতি, সদর উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড, মুক্তিযোদ্ধা সংহতি পরিষদ, ভারত-বাংলাদেশ সম্প্রীতি পরিষদ, সাহিত্য একাডেমির সভাপতি, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের আহ্বায়ক, জেলা শিল্পকলা একাডেমির সাধারণ সম্পাদক, বাংলাদেশ আবৃত্তি সমন্বয় পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রবিউল হোসেন রুবেল ও সাধারণ সম্পাদক শাহাদাৎ হোসেন শোভন সাক্ষর করেন।
স্মারকলিপিতে বলা হয়, গত ২৬ থেকে ২৮ মার্চ হেফাজতে ইসলামের নেতাদের নির্দেশে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা শহরে সরকারি-বেসরকারি ৩৮টি প্রতিষ্ঠানে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ করা হয়। এ সব ঘটনায় ৫৫টি মামলা দায়ের হয়েছে। কিন্তু তাণ্ডবের নির্দেশদাতা সাজিদুর রহমান ও মোবারক উল্লাহর বিরুদ্ধে এখনও পর্যন্ত কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৩ আসনের সাংসদ র. আ. ম. উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী নিজে বাদী হয়ে এজহার জমা দিলেও অজ্ঞাত কারণে সেটি মামলা হিসেবে নথিভুক্ত করা হচ্ছেনা।
স্মারকলিপিতে আরও বলা হয়, ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় চলা তাণ্ডবের মূলহোতা সাজিদুর রহমান ও মোবারক উল্লাহসহ জড়িত সকল আসামিকে দ্রুত গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনার জন্য নির্দেশনা প্রদান করা হোক।
স্মারকলিপি দেওয়ার সময় জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আল মামুন সরকার, আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুল ওয়াহিদ খান লাভলু ও আবুল কালাম ভূইয়া, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের আহ্বায়ক আব্দুন নূর, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তাসলিমা সুলতানা খানম নিশাত, বাংলাদেশ আবৃত্তি সমন্বয় পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক মো. মনির হোসেন, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রবিউল হোসেন রুবেল ও সাধারণ সম্পাদক শাহাদাৎ হোসেন শোভন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য লিখুন

আরও খবর