ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে সরস্বতী প্রতিমা ভাংচুর

প্রকাশিত: ৮:০৪ অপরাহ্ণ , ৩০ জানুয়ারি ২০২০, বৃহস্পতিবার , পোষ্ট করা হয়েছে 4 years আগে

নাসিরনগর(ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধিঃ- ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে দেবী সরস্বতীর প্রতিমা ভাঙচুরের খবর পাওয়া গেছে। ২৯ জানুয়ারি ভোররাতে উপজেলার চাতলপাড় ইউনিয়নের চাতলপাড় ডিগ্রি কলেজে প্রতিমা ভাঙচুরের এ ঘটনা ঘটে। বুধবার রাতে প্রতিমা ভাঙচুরের ঘটনা ঘটলেও পুলিশ এখন পর্যন্ত কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেননি।

উপজেলার হাওরবেষ্টিত ইউনিয়নের চাতলপাড় এলাকায় ১৯৯১ সালে এক একর জায়গার উপর প্রতিষ্ঠিত চাতলপাড় ডিগ্রি কলেজ।

এ কলেজে প্রায় ৬০০ শিক্ষার্থী রয়েছে। প্রতিবছরই কলেজের সনাতন ধর্মাবলম্বী শিক্ষার্থীরা বিদ্যা ও সঙ্গীতের দেবী সরস্বতীর আরোধনাকে কেন্দ্র করে পূজার আয়োজন করে থাকে। এবারো এর ব্যতিক্রম হয়নি। শিক্ষার্থীরা রাত ১১টা পর্যন্ত প্রতিমা সাজিয়ে নিজ নিজ বাসায় চলে যায়। সকালবেলা পূজা করতে এসে কলেজে জানতে পারে প্রতিমা ভাঙচুর করেছে কিছু দুর্বত্ত।

এদিকে নাসিরনগর উপজেলা পূজা উদযাপন কমিটির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অনাথ বন্ধু দাস বলেন, বর্তমান সরকারের ভাবমূর্তি নষ্ট করার জন্য কিছু দুর্বৃত্ত এ কাজ করছে। তারা নাসিরনগরের হিন্দু-মুসলমানের শত বছরের ঐতিহ্য ক্ষতি করতে এ কাজ করে যাচ্ছে। অপরাধী যেই হোক আমরা বিচার চাই।

কলেজ কর্তৃপক্ষ সূত্রে জানা যায়, ২৯ জানুয়ারি ভোররাতে কলেজের গণিত বিভাগের শিক্ষক সুরঞ্জিত দাস ও কম্পিউটার সাইন্সের নরেন্দ্র সূত্রধর প্রতিমা রাখার রুমে প্রবেশ করে দেখতে পান প্রতিমার মাথা ভাঙ্গা। বিষয়টি সাথে সাথে কলেজের অধ্যক্ষকে অবহিত করলে কলেজ কর্তৃপক্ষ স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ও পুলিশ প্রশাসনকে সাথে সাথে অবহিত করেন। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ভাঙ্গা প্রতিমা সংরক্ষণ করে একটি আলাদা রুমে তালাবদ্ধ করে রাখেন।

এ ব্যপারে কলেজ শিক্ষক সুরঞ্জিত দাসের বক্তব্য, কলেজের শিক্ষার্থীরা বুধবার রাত ১১টা পর্যন্ত প্রতিমা সাজিয়ে রেখে চলে যায়। ভোররাতে পূজার্চ্চনার জন্য প্রস্তুতি নিতে এসে দেখতে পাই প্রতিমা ভাঙ্গা।
চাতলপাড় ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ মো. ওমর আলী সমকালকে জানান, বিষয়টি নিয়ে আমরা খুবই মর্মাহত। খবর পাওয়ার পরপর আমরা সংশ্লিষ্ট সকলে অবহিত করেছি এবং দ্রæত সময়ের মধ্যে নতুন প্রতিমা এনে পূজার কাজ শুরু করা হয়েছে।

চাতলপাড় পুলিশ ফাঁড়ির দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রঞ্জন কুমার বলেন, প্রতিমা ভাঙ্গার খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে ছুটে যায়। পুজা শেষে এ ব্যপারে তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। ভাঙ্গা প্রতিমাটি একটি রুমে সংরক্ষণ করে রাখা হয়েছে। তবে এ বিষয়ে এখন পর্যন্ত কোন মামলা হয়নি বলেও তিনি জানান।

মন্তব্য লিখুন

আরও খবর