পলাশবাড়ীতে সড়ক সংস্কারে ব্যাপক অনিয়ম; এলাকাবাসীর ক্ষোভ

প্রকাশিত: ৬:৫৭ অপরাহ্ণ , ১১ ফেব্রুয়ারি ২০২০, মঙ্গলবার , পোষ্ট করা হয়েছে 4 years আগে
অনিয়ম ও দুর্নীতি
প্রতিকী ছবি

আশরাফুল ইসলাম, গাইবান্ধা প্রতিনিধি : গাইবান্ধার পলাশবাড়ী উপজেলার একটি পাকা সড়ক সংস্কারে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে মনি কনস্ট্রাকশন নামে এক ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে। স্থানীয় এলাকাবাসীর অভিযোগ উপজেলার দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের যোগসাজসেই ওই ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান রাতের আঁধারে এই কাজটি করছেন। এই অনিয়মের প্রতিবাদে ক্ষোভে ফুঁসে ওঠেছে এলাকাবাসী। তাদের দাবী নিম্নমানের এই কাজ অবিলম্বে বন্ধ করা হোক এবং দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে যথাযথ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করা হোক।

জানা যায় যে প্রায় ৭৩ লাখ টাকা ব্যয়ে ৪.৫০ কিলোমিটার সড়কে সংস্কার কাজে মালামাল প্রায় ১ শত কিলোমিটার দুর হতে তৈরী করে এনে এ রাস্তাটির সংস্কার কাজ চলমান রয়েছে। গতকাল ১০ ফেব্রয়ারী নিয়মনীতির তোয়াক্কা না করে রাত ১০ টার পর হতে সারারাত কিশোরগাড়ী বাজারের অংশে সংস্কার কাজে পাথর ও বিটুমিন মেশানো মসলা দিয়ে সড়কের কার্পেটিং করা হয়।এসব বিটুমিন মেশানো পাথর সড়কে ফেলার আগে সড়কটি না করা হয়েছে পরিস্কার বা না হয়েছে বিটুমিন মিশ্রিত তেল ব্যবহার বালু মাটির উপরে করা হয়েছে কার্পেটিং ফলে রাত না যেতেই কার্পেটিং উঠে যাচ্ছে। জমি নিড়ানীর মতো কার্পেটিং উঠে যাচ্ছে এলাকাবাসী হাতে।

ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের দায়িত্বপ্রাপ্তরা জানান, কার্পেটিং এর মালামাল আনতে ধরে সড়ক দূর্ঘটনায় পরে ফলে মালামাল গুলো সড়কে পৌছাতে দেরী হয় ফলে কার্পেটিং এর জন্য মিশ্রিত মালামাল গুলো জমে যায় এর ফলে কাজ করতে রাত হয়। তবে কাজের সময় উপজেলা সহকারি প্রকৌশলী হেলাল সাহেব কাজের সময় উপস্থিত ছিলেন। কাজের মান খারাপ হলে সেটা পূর্নরায় করা হবে।

এ বিষয়ে উপজেলা প্রকৌশলী তাহাজ্জদ হোসেন জানান, কাজের সময় অফিসের লোকজন উপস্থিত ছিলো। কাজের মান খারাপ হয়েছে বলে লোকমুখে জানতে পেরেছি ।একারণে বর্তমানে কাজ বন্ধ আছে। এবিষয়ে আগামীকাল সরেজমিনে দেখে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এবং সঠিকভাবে সংস্কার কাজটি ঠিকাদারের নিকট বুঝিয়ে নেওয়া হবে।

মন্তব্য লিখুন

আরও খবর