ডাকাতকে কাঁধে নিয়েই ছুটলেন পুলিশ, ছবি মুহূর্তেই ভাইরাল

প্রকাশিত: ৬:২৬ পূর্বাহ্ণ , ২৪ মার্চ ২০২৪, রবিবার , পোষ্ট করা হয়েছে 4 weeks আগে
ছবি- কালের বিবর্তন

ছবিতে দেখতে মনে হচ্ছে এক যুবকের কাঁধে আরেক যুবক, পেছন-পেছন আরেকজন। কাঁধে নেওয়া যুবকের মুখে কেমন যেন এক হাসি, তাড়াহুড়া বড় বড় করে পায়ের হাঁটুলিতে পেছনে আরেক জন। এই ছবিটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। ভাইরাল হওয়া ছবিতে অনেকেই প্রশংসায় অনেক কিছু লেখছিলেন পুলিশকে, যদিও ইউনিফর্ম নেই গায়ে কারো।

ছদ্মবেশে ছিলেন পুলিশ সদস্যরা। জানা গেছে, ঘটনাটি সত্যি সত্যি পুলিশে। কাঁধের উপরে থাকা যুবক একাধিক ডাকাতি মামলার আসামি। মাদক ব্যবসার অভিযোগ আছে তার বিরুদ্ধে। তার বিরুদ্ধে ছিল একাধিক মামলার গ্রেপ্তারি পরোয়ানা।ঘটনাটি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে। মো. জীবন নামে ওই ডাকাতকে আটক করে কাঁধে তুলে থানায় আসেন পুলিশ সদস্য।

গত শুক্রবার (২২ মার্চ) ইফতারের আগ মুহূর্তে নাসিরনগর উপজেলার হরিপুরের একটি জমি থেকে তাকে এভাবেই ধরে থানায় নেয় পুলিশ।আটক জীবন ওই এলাকার বাসিন্দা মাধবপুর- হরিপুর সড়কে ডাকাতির অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে।এসআই রূপন নাথ জানান, পাঁচজন মিলে এ অভিযান চালানো হয়। জীবন খুবই চালাক। তিনি পালানোর চেষ্টা করেন।

একপর্যায়ে তাকে বাধ্য হয়ে কাঁধে তুলে নিয়ে আসা হয়। এ ঘটনায় রানা নামে এক পুলিশ কনস্টেবল আহত হওয়ার কথা জানান তিনি। নাসিরনগর থানার অফিসার ইনচাজা (ওসি) মো. সোহাগ রানা। মো. জীবন নামের ওই ডাকাতের আটকের তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।ওসি সাংবাদিকদের জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জীবনের অবস্থান সম্পর্কে জানতে পারে নাসিরনগর থানা পুলিশ।

ডাকাত জীবনকে গ্রেপ্তারের দায়িত্বে থাকা নাসিরনগর থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) রূপন নাথ এএসআই কামরুল ইসলাম ও তিন পুলিশ কনস্টেবলকে নিয়ে হরিপুরে যান। সেখানে গিয়ে দেখেন জীবন তার সঙ্গীদের দিয়ে একটি জমিতে বসে ইয়াবা সেবন করছে। তখন পুলিশ সদস্যরা ছদ্মবেশে সেখানে অবস্থান নেন। এ সময় পুলিশ সদস্যদের পক্ষে গিয়ে জীবন ও তার সঙ্গীদের কাছে পানি চাওয়া হয়। একপর্যায়ে অবস্থা বুঝে জীবনকে গ্রেপ্তার করেন তারা। পরে তাকে পরানো হয় হাতকড়া।

পুলিশ কনস্টেবল রানার হাতে কামড় দিয়ে ধস্তাধস্তির একপর্যায়ে হাতকড়া নিয়েই দৌঁড়ে পালায়। পুলিশ সদস্য ছুটে গিয়ে আবার তাকে আটক করে। এরপরও তাকে আনা যাচ্ছিল না। একপর্যায়ে এএসআই মো. কামরুল তাকে কাঁধে তুলে নেন। কিছুদূর আনার পর তাকে সিএনজিচালিত অটোরিকশায় করে কড়া পুলিশ পাহারায় থানায় নিয়ে আসা হয়।

ওসি বলেন,গতকাল শনিবার বিকালে তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।বিষয়টি নিয়ে মানুষের আলোচনায় সভার মুখে মুখে প্রশংসায় ভাসছে পুলিশ। ডাকাতকে পুলিশের কাঁধে করে থানায় নিয়ে যাওয়ার ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে রীতিমত ভাইরাল।