জর্ডান প্রবাসী প্রতারক স্বপ্না হতে সাবধান!

প্রকাশিত: ১২:৪০ পূর্বাহ্ণ , ১ মার্চ ২০২০, রবিবার , পোষ্ট করা হয়েছে 4 years আগে

কোহিনূর আক্তার আম্মান, জর্ডান থেকেঃ স্বপ্না জর্ডানে ৭  বছর কর্মরত ছিলেন।মূলত তার পেশাই হচ্ছে  প্রতারণা করা।প্রতারণার মাধ্যমে বিপুল সংখ্যক অর্থ হাতিয়ে নেওয়া।

রুহুল নামের এক জর্ডান প্রবাসীর সাথে সর্ব শেষ প্রতারণা করে স্বপ্না বাংলাদেশে চলে আসে। স্বপ্না জর্ডানে থাকা অবস্থায় বেশি টাকা রোজগারের আশায় নিয়োগকর্তার বাসা থেকে পলায়ন করে। বাসা থেকে পালিয়ে রাজধানী আম্মানের দাওভোগ এলাকার রাস্তায় ভুক্তভোগী নারায়ণগঞ্জের রুহুলের সাথে দেখা হলে রুহুল সহযোগিতা করে এবং আশ্রয় দেয়।পরবর্তীতে রুহুলের সাথে প্রেমের অভিনয় করে এবং রুহুলের কাছ থেকে বিভিন্ন সময় বিপুল পরিমান অর্থ হাতিয়ে নেয়। সর্বশেষ  জর্ডানে বৈধ ভাবে থাকার জন্য কাজের অনুমতি পত্র তৈরি করতে ভুক্তভোগী রুহুল কে জামিনদার বানিয়ে সমিতি থেকে ১৯৭৫ জর্ডানি দিনার বা বাংলাদেশী ২ লক্ষ ৩০ হাজার টাকা ঋণ গ্রহন করে।

এবং কাউকে কিছু না জানিয়ে আম্মানের বাংলাদেশ দূতাবাস থেকে আউট পাস বা ট্রাভেল পারমিট নিয়ে বাংলাদেশে চলে আসে।
এখন সমিতির লোকজন জামিনদার রুহুলকে টাকার জন্য চাপ দিলে রুহুল জানায় স্বপ্না অনেক টাকা হাতিয়ে দেশে চলে গিয়েছে। প্রতারক স্বপ্না কে ফোনে কল দিলে এবং সমিতির টাকার কথা বললে  স্বপ্না রুহুল কে মামলার এবং ব্লাক মেইল করার হুমকি ও ভয় দেখায়।  প্রতারক স্বপ্না হতে সকলে সাবধানে থাকার অনুরোধ জানিয়েছেন ভুক্তভোগী রুহুল সহ স্বপ্নার প্রতারণার শিকার অনেক প্রবাসী বাংলাদেশীরা।

মন্তব্য লিখুন

আরও খবর