কসবায় নকলে সহযোগীতা না করায় পরীক্ষার্থীদের উপর হামলায় প্রধান শিক্ষকসহ আহত ১০

প্রকাশিত: ৯:০১ অপরাহ্ণ , ৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০, রবিবার , পোষ্ট করা হয়েছে 4 years আগে
kasba_student_pic_kb
ছবি - কালের বিবর্তন

কসবা প্রতিনিধি : আজ রবিবার ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবার উপজেলার গোপীনাথপুর ইউনিয়নের শহীদ বাবুল উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে এসএসসি পরীক্ষায় নকলে সহযোগীতা না করায় সৈয়দাবাদ এ.এস মনিরুল হক উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের উপর হামলা করা হয়েছে। এতে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আলী মনসুরসহ ১০ শিক্ষার্থী আহত হয়েছে। আহতদের মধ্যে দুই শিক্ষার্থীকে আশংকাজনক অবস্থায় ঢাকায় প্রেরণ করা হয়েছে।

সৈয়দাবাদ এ. এস. মনিরুল হক উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আলী মনসুর জানান, গোপীনাথপুর শহীদ বাবুল উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে তাদের এস.এস.সি পরীক্ষার্থীদের আসন পড়েছে। আজ ইংরেজি দ্বিতীয়পত্র পরীক্ষা দেয়ার সময় গোপিনাথপুর গ্রামের এক যুবক তাদের বিদ্যালয়ের এক পরীক্ষার্থীকে নকল সরবরাহের জন্য মনিরুল হক উচ্চ বিদ্যালয়ের এক পরীক্ষার্থীকে বলে। সেই পরীক্ষার্থীর নকল সরবরাহ অপারগতা প্রকাশ করলে পরীক্ষা শেষে তাকে মারধর করা হয়। এরপর প্রধান শিক্ষক ওই ছাত্রকে নিয়ে কেন্দ্র সচিবের কাছে বিষয়টি অবহিত করেন। এরপর তারা বাড়ি ফিরে যেতে চাইলে ওই বিদ্যালয়ের পরীক্ষার্থী ও বহিরাগতরা মিলে তাদের উপর হামলা চালায়। হামলায় এ. এস. মনিরুল হক উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকসহ ১০ শিক্ষার্থী আহত হয়েছে।

পরে খবর পেয়ে পুলিশ আহতদেরকে উদ্ধার করে কসবা ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সদর হাসপাতালে প্রেরন করে। সেখানেও অবস্থার অবনতি হলে সোনিয়া আক্তার ও সাবিকুন্নাহার তন্বী নামের দুই পরীক্ষার্থীকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঢাকায় পাঠানো হয়।

কসবা উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা মাসুদুল আলম জানান, বিষয়টি আমাদের নজরদারিতে রয়েছে। দোষীদেরকে আইনের আওতায় আনার জন্য ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।