একজন মানবিক ডাক্তারের বিদায়

প্রকাশিত: ১১:৫৩ পূর্বাহ্ণ , ১ এপ্রিল ২০২১, বৃহস্পতিবার , পোষ্ট করা হয়েছে 3 weeks আগে
একজন মানবিক ডাক্তারের বিদায়

মো. তাসলিম উদ্দিন সরাইল( ব্রাহ্মণবাড়িয়া)

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে এক গরিবের ডাক্তার ছিলেন ডা. আনাস ইবনে মালেক। তার কাছে রোগীই ছিলো সব। নিজে করোনাভাইরাসের আক্রান্তের ঝুঁকি নিয়ে সবসময়ই তিনি রোগীর সেবায় ব্যস্ত ছিলেন। সরাইল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা’র (আরএমও) দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি তিনি সরাইল হাসপাতালের ওয়ার্ড, উপজেলা সদরের প্রাতঃবাজার এলাকায় চেম্বার, হাসপাতাল কমপ্লেক্সে কোয়ার্টারে রোগী দেখা- সবখানেই ব্যস্ত ছিলেন তিনি। মহামারি করোনা পরিস্থিতি সময়েও তিনি অবিরাম সেবা দিয়ে গেছেন রোগীদের।
ডা. আনাস ইবনে মালেক টানা প্রায় আট বছর যাবত সরাইল উপজেলার নানা পেশার মানুষের চিকিৎসা সেবা চালিয়ে গেছেন। বদলি জনিত কারণে তিনি সরাইল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে চলে যাচ্ছেন। আগামীকাল বৃহস্পতিবার তিনি এই কর্মস্থল ত্যাগ করবেন বলে সাংবাদিকদের জানিয়েছেন।
এদিকে সরাইল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা আনাস ইবনে মালেক’কে বিদায় সংবর্ধনা দিয়ে তার প্রতি নিজেদের ভালোবাসা প্রকাশ করেছে সরাইল উপজেলা রিপোর্টার্স ইউনিটি।
বুধবার (৩১ মার্চ) রাত ৮টার দিকে সরাইল সদরে রিপোর্টার্স ইউনিটি কার্যালয়ে আয়োজিত এ সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন সরাইল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আরিফুল হক মৃদুল।
রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি নুরুল হুদার সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক তাসলিম উদ্দিনের সঞ্চালনায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন সরাইল স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের প্রধান কর্মকর্তা ডা. নোমান মিয়া, সরাইল সার্কেল-এর সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার আনিছুর রহমান ও উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মো. সুমন মিয়া। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন রিপোর্টার্স ইউনিটির সিনিয়র সহ-সভাপতি আরিফুল ইসলাম সুমন।
উল্লেখ্য, সরাইল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্মরত অবস্থায় চিকিৎসাসেবা প্রদানের মাধ্যমে আনাস ইবনে মালেক হয়ে ওঠেন গরিবের ডাক্তার। সরকারি হাসপাতালের ডিউটির পরও রাত-বিরাতে রোগীর স্বজনদের ডাকে তিনি ছুটে যেতেন হাসপাতালে। বেসরকারি ক্লিনিকে গরিব-অসহায় রোগীদের বিনা পয়সায় দেখেছেন তিনি।
বিদায় সংবর্ধনার মাধ্যমে মানুষের এই ভালোবাসায় আবেগাপ্লুত হয়ে ডা. আনাস ইবনে মালেক বলেন, এই সংবর্ধনা আর ভালোবাসা আমার ডাক্তারি জীবনের সর্বোচ্চ অর্জন। এটি আমার জন্য অনুপ্রেরণা হিসেবে কাজ করবে। সরাইল রিপোর্টার্স ইউনিটির সবার কাছে আমি চিরকৃতজ্ঞত। আর সরাইলকে আমি আমার নিজের বাসভূমি মনে করি, এখানকার মানুষের সাথে আমার যে আত্মার সম্পর্ক রয়েছে সেটি কখনও ছিন্ন হবে না।
অনুষ্ঠানে রিপোর্টার্স ইউনিটির সকল সদস্য উপস্থিত ছিলেন। উপস্থিত ছিলেন সরাইল থেকে প্রকাশিত অনলাইন গণমাধ্যম ‘পুবের আলো’র স্টাফ রিপোর্টার আতিকুল ইসলাম ইফরান। পরে আলোচনা শেষে ডা. আনাস ইবনে মালেক’কে সংবর্ধনা ক্রেস্ট তুলে দেন অতিথিরা।

মন্তব্য লিখুন

আরও খবর