আগামীকাল টঙ্গীর তুরাগ তীরে বিশ্ব ইজতেমা শুরু

প্রকাশিত: ৭:৪০ অপরাহ্ণ , ৯ জানুয়ারি ২০২০, বৃহস্পতিবার , পোষ্ট করা হয়েছে 4 years আগে
বিশ্ব ইজতেমা

কালের বিবর্তন ডেস্ক : রাজধানীর অদূরে টঙ্গীর তুরাগতীরে আগামীকাল শুক্রবার (১০ জানুয়ারি) ফজরের নামাজ শেষে আম বয়ানের মধ্য দিয়ে শুরু হচ্ছে তাবলিগ জামাতের ৫৫তম বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্ব। পরবর্তীতে ১২ জানুয়ারী রবিবার আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে তা শেষ হবে।

ইজতেমা উপলক্ষে মাঠের সব রকম প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে বলে জানিয়েছেন তাবলিগ জামাতের বিশ্ব ইজতেমা আয়োজক কমিটি।
আয়োজক কমিটির ধারনা গতবারের চেয়ে এবার কয়েকগুন বেশী মুসল্লি ময়দানে অবস্থান নিবেন।

এরপর ৪ দিন বিরতি দিয়ে দ্বিতীয় পর্ব ১৭ জানুয়ারি শুরু হয়ে ১৯ জানুয়ারি আখেরি মোনাজাতের মধ্যে দিয়ে শেষ হবে। প্রথম পর্বের তিনদিন আলেম ওলামা এরপর মাঝে চারদিন বিরতি দিয়ে দ্বিতীয় পর্বের তিনদিন মাওলানা সা’দ অনুসারীরা ইজতেমা আয়োজন করবেন।

ইতিমধ্যে এই মহাসম্মেলনের সব প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। তিন দিনের ইজতেমায় আসা মুসল্লিদের রাত যাপনের জন্য মাটিতে চট বিছিয়ে, ওপরে শামিয়ানা টাঙানো হয়েছে। মুসল্লিদের অজু-গোসল, পানের জন্য চৌবাচ্চা পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করে বিশুদ্ধ পানিতে পূর্ণ করা হয়েছে। ইজতেমার শেষ দিন পর্যন্ত এসব চৌবাচ্চায় নিরবচ্ছিন্ন পানি সরবরাহ থাকবে। মাঠের চারদিকে স্থায়ী শৌচাগারের পাশাপাশি নির্মাণ করা হয়েছে অস্থায়ী শৌচাগার। মাঠের প্রতিটি কোনে মুসল্লিদের বয়ান শোনার জন্য মাইক লাগানো হয়েছে। ইজতেমা চলার সময় থাকবে নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুত্ সরবরাহ।

ইজতেমার মাঠ ঘুরে দেখা গেছে, ইতিমধ্যেই মাঠ মুসল্লিদের পদচারণে মুখরিত। বিভিন্ন জেলার কিশোর, যুবক, বয়োজ্যেষ্ঠ সব শ্রেণীর মানুষ ইজতেমায় এসেছেন। গতকাল থেকে ইজতেমা মাঠে প্রবেশপথে মুসল্লিদের ভিড় লেগেই আছে। অনেকে দীর্ঘ চল্লিশ বা ১২০ দিন ইসলামের দাওয়াত শেষ করে ইজতেমায় শরিক হচ্ছেন। আবার কেউ কেউ ইজতেমা শেষে দেশ-বিদেশ ঘুরে ইসলামের দাওয়াত দিতে ৪০ বা ১২০ দিনের জন্য বেরিয়ে পড়বেন। ধনী, দরিদ্র সবাই এখানে এক শামিয়ানার নিচে একসঙ্গে অবস্থান করছেন। মুসল্লিরা প্রত্যেকে নিজ নিজ ব্যবহার্য দ্রব্যাদি কাঁধে বহন করে মাঠে আসছেন।

বিশ্ব ইজতেমার নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সব রকম প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। পুলিশ, র্যাব, গোয়েন্দা সদস্যরা সার্বক্ষণিক নিরাপত্তায় নিয়োজিত রয়েছেন।

মন্তব্য লিখুন

আরও খবর