আখিঁতারায় গ্রামবাসীর সংঘর্ষে আহত ৩০

প্রকাশিত: ১:২৫ পূর্বাহ্ণ , ১৩ এপ্রিল ২০২০, সোমবার , পোষ্ট করা হয়েছে 4 years আগে
সংঘর্ষকালে তোলা ছবি

মোঃ তাসলিম উদ্দিন সরাইল প্রতিনিধিঃ সারা বিশ্ব আজ স্তম্ভিত। বাংলাদেশের প্রায় ১৮ কোটি মানুষ করোনার আগ্রাসনে ভয় উৎকণ্ঠা নিয়ে রাতে ঘুমাতে যায়। চোখ খুলে দিন কাটে ভয়ংকর মরণব্যাধি করোনার আতঙ্কে। দেশে এখনো করোনা রোগে নতুন করে কেউ না কেউ আক্রান্ত হচ্ছে। যদি সরাইলে এখন পর্যন্ত কেউ আক্রান্ত হয়নি।

গতকাল ব্রাক্ষণবাড়িয়া জেলাকে লকডাউন ঘোষণা করেছেন জেলা প্রশাসক। বতর্মানে করোনা প্রতিরোধে প্রশাসন রাতদিন  মানুষকে ঘরে রাখতে সর্বোচ্চ চেষ্টা করে যাচ্ছেন। এদিকে মানুষরূপী কিছু মানুষ আজ রোববার (১২ এপ্রিল) সকালে উপজেলার নোঁয়াগাও ইউনিয়নের আখিতাঁরা গ্রামে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটায়। সংঘর্ষে আহত ৩০ জনকে সরাইল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

দুঃখদায়ক বিষয় হল, পুলিশ স্থানীয় সূত্র জানায়, বতর্মান নোয়াগাঁও ইউপি চেয়ারম্যন কাজল চৌধুরী আব্বাসের গোষ্ঠিরমধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। রোববার সকাল ৯টায় এই দুই গোষ্ঠীর কিছু লোকজনের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এতে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে।  উভয় পক্ষের লোকজন দেশীয় অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে।

আপনাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি, বর্তমান করোনার প্রভাবে বিশ্বের বড় বড় যুদ্ধ বন্ধ হয়ে গেছে। উপজেলার আখিঁতারা গ্রামের দুই গোষ্ঠীর তাণ্ডবে পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে প্রায় আড়াই ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে কয়েক রাউন্ড রাবার বুলেট ও টিয়ারগ্যাস নিক্ষেপ করে সংঘর্ষ নিয়ন্ত্রণে আনে।

এসময় সরাইল থানার অফিসার ইনচার্জ  মোঃ সাহাদাত হোসেন টিটো দীর্ঘশ্বাস ফেলে বলেন, এরা কবে বুঝবে দেশ ক্লান্তিসময় পার করছে। তারা তাদের পূর্বশত্রুতার জেরে নোঁয়াগাও ইউনিয়নের চেয়ারম্যন কাজল চৌধুরী আব্বাসের গোষ্ঠীর মধ্যে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটায় পুলিশ টিয়ারসেল রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে সংঘর্ষ নিয়ন্ত্রণে এনেছে এবং ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

সরাইল প্রশাসনের কর্মকর্তারা রাত দিন পরিশ্রম করছেন মানুষকে সচেতন করতে।

মন্তব্য লিখুন

আরও খবর